শীঘ্রই অনুমোদন পাচ্ছে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন

যুক্তরাজ্যে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা ভ্যাকসিন বড়দিনের পরেই অনুমোদন পেতে পারে। ব্রিটিশ সরকারের সিনিয়র কর্মকর্তারা বলেছেন, ২৮ বা ২৯ ডিসেম্বর ভ্যাকসিনটিকে অনুমোদন দিতে পারে দেশটির ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা মেডিসিন্স অ্যান্ড হেলথকেয়ার প্রোডাক্ট রেগুলেটরি এজেন্সি (এমএইচআরএ)। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল এখবর জানিয়েছে।

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীদের চূড়ান্ত তথ্য পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। সোমবার এসব তথ্য দাখিল করা হবে। এমএইচআরএ- এর একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, পর্যালোচনা চলমান রয়েছে।

গ্রেট ব্রিটেনে ইতোমধ্যে ১ লাখ ৪০ হাজারের বেশি মানুষ ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনা ভ্যাকসিন নিয়েছেন। এই মাসের শুরুতে নিয়ন্ত্রক সংস্থা জরুরি ব্যবহারের জন্য ভ্যাকসিনটি প্রয়োগের অনুমতি দেয়। ফাইজারের ভ্যাকসিনটি মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করতে হয়। কিন্তু অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন রুমের সাধারণ তাপমাত্রায় রাখা যায়।

শনিবার যুক্তরাজ্যের সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী সতর্ক করে বলেছেন, ফাইজার-বায়োএনটেকের অবশিষ্ট ভ্যাকসিন ডোজ জানুয়ারিতে প্রয়োগ করা হবে। মার্চ মাসের আগে আর কোনও ভ্যাকসিন চালান পাওয়া যাবে না। ফলে চলমান ভ্যাকসিন কর্মসূচি স্থবির হয়ে যেতে পারে।

তিনি আরও বলেছেন, অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন বড় ধরনের পার্থক্য এনে দিতে পারে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদন পাওয়ার পর ব্রিটেনজুড়ে ফুটবল স্টেডিয়াম, রেস কোর্সগুলোতে আগামী বছরের শুরুতেই গণ ভ্যাকসিন কর্মসূচি শুরু হবে। এর ধারাবাহিকতায় মার্চে দেশটির ঝুঁকিতে থাকা ২ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। এতে করে কিছু বিধিনিষেধ শিথিল করার পথ সুগম হবে।

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের ১০ কোটি ডোজ অর্ডার দিয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার। যুক্তরাজ্যে  অনুমোদন পেলে যেসব দেশ ভ্যাকসিনটির আগাম অর্ডার দিয়েছে তাদের মনোবল বাড়বে বলে ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *