ইতিহাস তৈরির লক্ষ্যে ‘ফাইটার’ হৃত্বিক-দীপিকার

আসছে হৃত্বিক-দীপিকার ছবি ‘ফাইটার’। সিদ্ধার্থ আনন্দ পরিচালিত এই নতুন অ্যাকশন ছবি যে বলিউডে নতুন ধারার অ্যাকশনধর্মী ছবির সিরিজের সূচনা করতে চলেছে তা ঘোষণা করা হল নির্মাতা সংস্থার তরফে।বলিউডে প্রথমবার এক ছবিতে একসঙ্গে দেখা যাবে হৃত্বিক রোশন ও দীপিকা পাড়ুকোনকে। অ্যাকশনে ভরপুর সেই ছবির নাম ‘ফাইটার’। তবে স্ক্রিনে দু’জন ফাইট করবেন না, বরং জুটি হিসেবেই কাজ করবেন তারা। সম্প্রতি দীপিকা ও ছবির পরিচালক সিদ্ধার্থ আনন্দের সঙ্গে একাধিক ছবি পোস্ট করেছেন হৃত্বিক।

উল্লেখ্য, সিদ্ধার্থ আনন্দের সঙ্গে এর আগেও ‘ওয়ার ‘ছবিতে কাজ করেছেন হৃত্বিক। সেখানে তার সঙ্গে দেখা গিয়েছিল বাণী কাপুর ও টাইগার শ্রফকে। ‘ফাইটার ২০২২ সালে মুক্তি পাওয়ার জন্য তৈরির পথে। এটিই ভারতের প্রথম আকাশপথে অ্যাকশন নির্ভর ফ্র্যাঞ্চাইজি হতে চলেছে। গ্লোবাল দর্শকের কথা মাথায় রেখে তৈরি হচ্ছে এই ছবি। এবং ছবির শ্যুটিং লোকেশনও হবে পৃথিবীর নানা প্রান্তে। ভায়াকম ১৮ স্টুডিওসের প্রযোজনায় তৈরি হবে ছবিটি। শ্যুটিং এ ব্যবহার করা হবে অত্যাধুনিক টেকনোলজি, শ্যুটিং টেকনিক। লোকেশন, পদ্ধতি বিদেশি হলেও, ছবির প্রাণকেন্দ্র ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর বীরত্বের গল্প।

 

পরিচালক সিদ্ধার্থ আনন্দ বলেন, ‘আমার ক্যারিয়ারের এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং ছবি ‘ফাইটার’। এই ছবিই হবে ভারতের প্রথম এরিয়াল অ্যাকশন ফিল্ম। আমাদের প্রধান লক্ষ্যে অ্যাকশন প্রেমী গ্লোবাল দর্শকের মন পাওয়া।’

সব কিছু ঠিক থাকলে ছবি মুক্তি পাবে আগামী বছরের শেষের দিকে। অ্যাকশন মুভির চাহিদা বলিপাড়ায় নতুন নয়। সালমান থেকে টাইগার শ্রফ– প্রতি প্রজন্মেই অ্যাকশন হিরোদের পেয়েছে বলিঊড। কিন্তু তাই বলে আকাশে বাতাসে যুদ্ধ! উত্তেজিত সিনেপ্রেমীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.