ইসরায়েলি আগ্রাসন মোকাবেলায় তুরস্কের আন্তর্জাতিক বাহিনী গঠন

ওআইসি’র জরুরি বৈঠকে সৌদি আরব, মালয়েশিয়া ও পাকিস্তানের মতো সদস্য দেশগুলো পূর্ব জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি আগ্রাসনের নিন্দা পুনর্ব্যক্ত করেছেন। আর বলেছেন ইসরায়েল যুদ্ধাপরাধ করছে। তবে তুরস্ক শুধু নিন্দা না জানিয়ে বাহিনী গঠনের প্রস্তাব সামনে এনেছে। গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি আগ্রাসন অব্যাহত থাকার মধ্যে ফিলিস্তিনিদের সুরক্ষায় আন্তর্জাতিক বাহিনী গঠনের প্রস্তাব দিয়েছে তুরস্ক। অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশনের (ওআইসি) এক জরুরি বৈঠকে এই প্রস্তাব তুলেছে আঙ্কারা।

তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওআইসিকে আশ্বস্ত করেছেন যে, ২০১৮ সালের জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের একটি প্রস্তাবের আওতাতেই আন্তর্জাতিক আইনে স্বীকৃত ভাবেই এই ধরনের বাহিনী গঠন সম্ভব। তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু প্রতিনিধিদের বলেন, “আগ্রহী দেশগুলোর সামরিক এবং আর্থিক অনুদানের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক বাহিনী গঠন করে ফিলিস্তিনিদের শারিরীক সুরক্ষা নিশ্চিত করা উচিত।’ তিনি ওআইসি এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ন্যায়বিচার ও মানবতার পক্ষে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘অন্য কোনও বিবেচনা থাকা উচিত নয়। এখন আমাদের একতা এবং সিদ্ধান্তগ্রহণের কার্যকারিতা প্রদর্শনের সময়।“

Leave a Reply

Your email address will not be published.