গাজা- ইসরায়েলের যুদ্ধ

মঙ্গল ও বুধবার গাজায় কয়েক শ লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। হামলায় গাজায় ১৩ তলা একটি আবাসিক ভবন ধ্বংস হয়েছে। ফিলিস্তিন-ইসরায়েলের চলমান সংঘাতের তীব্রতা বেড়েছে। গাজায় ইসরায়েলের বিমান হামলা ও গাজা থেকে ইসরায়েলে রকেট ছোড়া হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে সেখানে পুরোদমে যুদ্ধ শুরু হওয়ার আশঙ্কা করছে জাতিসংঘ।

গত সোমবার থেকে শুরু সহিসংতায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত ৪৩ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। ফিলিস্তিনে নিহত লোকজনের মধ্যে ১৩ শিশুও রয়েছে। অন্যদিকে রকেট হামলায় ইসরায়েলি নিহত হয়েছেন ছয়জন।গাজার উত্তরাঞ্চল থেকে ছোড়া একটি ক্ষেপণাস্ত্র সীমান্তে একটি জিপে আঘাত হানলে মৃত্যু হয় তাঁর। এ ঘটনায় আরও তিনজন আহত হয়েছেন। এ ছাড়া ইসরায়েলের রাজধানী তেল আবিবের কাছের শহর লডে ফিলিস্তিনিদের ছোড়া একটি রকেট গাড়িতে আঘাত হানলে ৫২ বছরের একজন ব্যক্তি এবং তাঁর ১৬ বছরের মেয়ে নিহত হন।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বলেছে, এখন পর্যন্ত গাজা থেকে ১ হাজার ৫০টি রকেট ও মর্টার শেল ছোড়া হয়েছে। সেগুলোর মধ্যে ৮৫০টি ইসরায়েলের সীমানায় পড়েছে বা তাদের আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা (আইরন ডোমে) প্রতিহত করেছে। আর ২০০টি ইসরায়েলি সীমান্তে ঢুকতে ব্যর্থ হয়ে গাজাতে পড়েছে। জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ চত্বরে ইসরায়েলি পুলিশের সঙ্গে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের টানা কয়েক দিনের সংঘর্ষের পর ফিলিস্তিন-ইসরায়েল দুই পক্ষের মধ্যে সংঘাত শুরু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.