হাটহাজারীতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় মাদ্রাসার শিক্ষক সহ গ্রেপ্তার চারজন

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে গত ২৬ মার্চ জুমার নামাজের পর ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদ এলাকায় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশ ও সরকারি দলের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। প্রতিবাদে হাটহাজারীতে মাদ্রাসাশিক্ষার্থীরা থানায় হামলা চালালে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি ছোড়ে। পরে চারজন নিহত হন।

ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগে জড়িত অভিযোগে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাঁরা হলেন মো. কামরুদ্দিন (২৮), আখতার মিয়া (৫৫), বখতিয়ার উদ্দিন (২৩) ও সাদেকী সাঈদ মুছা (১৯)। গত বুধবার রাতে তাঁদের হাটহাজারীর বিভিন্ন জায়গা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের মধ্যে কামরুদ্দিন হাটহাজারীর চারিয়া মুরাদপুর এলাকার একটি মাদ্রাসার শিক্ষক। বাকি তিনজন সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যায়নি। তবে স্থানীয় সূত্র বলছে, তাঁরা হেফাজতে ইসলামের কর্মী হিসেবে পরিচিত।

চট্টগ্রাম জেলা কোর্ট পরিদর্শক হুমায়ুন কবির আজ বিকেলে  বলেন, চারজনকে হাজির করা হলে আদালত তাঁদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে কি না, প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখনো কাগজপত্র পাননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.