ল্যাপটপ চার্জে দিয়ে ঘুমানোই বিপদ চিকিৎসকের!

ল্যাপটপ বা ফোন চার্জে দিয়ে অনেকেই ঘুমিয়ে পড়েন । গাজিয়াবাদের এক চিকিৎসকের ৬ তলার ফ্ল্যাটে ল্যাপটপ চার্জে দিয়ে ঘুমানোর পর দাউদাউ করে আগুন জ্বলে উঠে। কেউ হতাহত না হলেও বাসার প্রায় ৩-৪ লাখ টাকার আসবাবপত্র ছাই হয়ে যায়। শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ পুনীত কালরা’র ফ্ল্যাটে এ ঘটনা ঘটে।

গতকাল বুধবার (১৩ জানুয়ারি) ভোররাতে প্রায় সাড়ে ৪টার দিকে ভারতের উত্তর প্রদেশের গাজিয়াবাদ শহরে ঘটে এ ঘটনা।

চিকিৎসক পুনীত জানান, বুধবার ভোররাতে প্রায় সাড়ে ৪টার দিকে ঘুমিয়ে পড়ছিলেন। এসময় তার ল্যাপটপ চার্জে দেওয়া ছিল। কিন্তু সকাল সাড়ে ৭টার দিকে চিৎকার করতে শুরু করেন তার স্ত্রী। ঘরে দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে বলে জানান। মাত্র সাত বছরের মেয়েকে নিয়ে সেই সময় ড্রয়িংরুমে যাওয়ার জন্য চেষ্টা করলেও আগুনের শিখা এবং ধোঁয়ার জন্য মেয়েকে নিয়ে যেতে পারেননি পুনীত।

আগুনের শিখার জন্য ফ্ল্যাট থেকে বের হওয়ার উপায় না পেয়ে বারান্দায় গিয়ে সকলের সহায়তার জন্য চিৎকার শুরু করেন। তার চিৎকারে প্রতিবেশীরা মই দিয়ে উদ্ধার করেন তাকে। আর এই সময়ের মধ্যেই ফ্ল্যাটের ভেতর বিস্ফোরণের একটি আওয়াজ শুনতে পান তিনি। তবে সেটি কোনো ইলেকট্রিক ডিভাইসের ছিলো বলেই ধারনা করেন ওই চিকিৎসক।

আগুন লাগার খবর জানতে পেরে তিনটি গাড়ি নিয়ে হাজির হয় দমকলকর্মী। উদ্ধারকর্মীরা আসতে আসতে চিকিৎসক, তার মেয়ে ও স্ত্রী ফ্ল্যাটের বাইরে বের হয়ে আসেন। কিছুক্ষণ পর নিয়ন্ত্রণে চলে আসে আগুন।

দমকলকর্মীরা ধারনা করেন, সোফায় রাখা ল্যাপটপ থেকে আগুন লাগতে পারে। ল্যাপটপের চার্জার ফুলে গরম হয়ে গিয়েছিল সোফা এবং সেখান থেকে আগুন লাগতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.