বন্ধুসহ সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণের অভিযোগে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

গত ১২ জানুয়ারি পারিবারিক কলহ মেটানোর কথা বলে রাজধানীর খিলগাঁওয়ের একটি বাসায় ডেকে বন্ধুদের দিয়ে স্ত্রীকে (২৫) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত স্বামীর নাম আয়ুব আলী (৬৫)।

রবিবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে ওই নারী খিলগাঁও থানায় তার স্বামীসহ ৬ জনকে আসামি করে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন।

তিনি বলেন, ‘গত ১২ জানুয়ারি ওই নারীকে তার স্বামী বন্ধুদের দিয়ে ধর্ষণ করিয়েছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি। ঘটনার পর ওই নারীকে  ঢাকা মেডিক্যালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে নিয়ে যান তার স্বজনরা। সেখানে বাসার ঠিকানা বলতে না পারায় হাসপাতাল থেকে আমাদের বিষয়টি জানানো হয়নি।’

ওসি বলেন, ‘ভুক্তভোগী নারী রবিবার দুপুরে  থানায় এসে ধর্ষণ মামলা করেছেন। আমরা আসামি গ্রেফতারের চেষ্টা করছি।’

ধর্ষণের শিকার নারীর খালাতো ভাই জানান, তার বোন আয়ুব আলীর দ্বিতীয় স্ত্রী। পারিবারিক কলহের জেরে তার বোন এক মাস ধরে  ধোলাইপাড়ে  আলাদা বাসায় থাকছেন। গত ১২ জানুয়ারি দুপুর দুইটার দিকে আয়ুব পারিবারিক কলহ মেটানোর কথা বলে তার বোনকে খিলগাঁওয়ের  সিপাইপাড়া টেম্পু স্ট্যান্ডের পাশে কালুন নামে এক বন্ধুর বাসায় নিয়ে যায়।

তিনি আরও জানান, সেখানে নিয়ে কিছু বুঝে ওঠার আগেই আয়ুব পাঁচ বন্ধুকে দিয়ে তাকে ধর্ষণ করায়। আমি ঘটনা জানতে পেরে বোনকে নিয়ে ঢাকা মেডিক্যালে যাই। এ কয়দিন বোন মেডিক্যালে ছিল। চিকিৎসার পর আজ বোনের স্বামীসহ ছয় জনকে আসামি করে খিলগাঁও থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.