লটারিটতে ভর্তি

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, ”শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনা করে মার্চ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। লটারি মাধ্যমে ভর্তিতে নানা ধরণের মেধার শিক্ষার্থীরা সব স্কুলে ভর্তির সুযোগ পাবে। যা শিক্ষার মান বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে। এর মধ্যে দিয়ে স্কুলগুলোর মানোন্নয়ন হবে। ”
স্কুলগুলোতে ১ম শ্রেণিতে ৯ম শ্রেণি পর্যন্ত লটারির মধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হচ্ছে। ৭৭ হাজার ১৪০টি শূন্য আসনের বিপরীতে এ ডিজিটাল লটারি অনুষ্ঠিত হল। আর আবেদন জমা পড়ে। ৫ লাখ ৭৪ হাজার ৯২৯টি।
 
রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে ভর্তির ডিজিটাল লটারি উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। পরে, আজিমপুর গার্লস স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রী বোতম টিপে লটারির কার্যক্রম শুরু করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.