অনিশ্চয়তায় এইচএসসির ফল

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি চলতি সপ্তাহে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশের ঘোষণা দিলেও পরীক্ষা ছাড়া ফল প্রকাশের অধ্যাদেশ জারি না হওয়ায় তা আটকে গেছে। পরীক্ষা ছাড়া ফলাফল তৈরির অধ্যাদেশ চূড়ান্ত করতে ৪ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ সভায় অনুমোদনের কথা থাকলেও সভা বাতিল হওয়ায় তা পিছিয়ে গেছে। ১১ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ সভায় অধ্যাদেশটি অনুমোদন হওয়ার কথা রয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত এক সচিব  বলেন, আগামী মন্ত্রিপরিষদ সভায় অধ্যাদেশ অনুমোদন হলেও পরে নানান ধরনের প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হবে। ভাষাগত ও আইনি অসঙ্গতি রয়েছে কিনা তা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। সেখান থেকে চূড়ান্ত হলে প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরের জন্য আলাদা করে পাঠানো হবে। স্বাক্ষর প্রদানের পর তা জারি করা হবে।

পরবর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আইনি বাধ্যবাধকতার কারণে শিগগিরই অধ্যাদেশ জারির পর ফল প্রকাশ করা হবে। ফল তৈরি আছে, জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে অধ্যাদেশ জারি করে ওই সপ্তাহে ফলাফল প্রকাশ কর হবে।’ তবে মন্ত্রিপরিষদ সভায় এখনো অনুমোদন না হওয়ায় এ সপ্তাহে ফল প্রকাশ সম্ভব হচ্ছে না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের বৃহস্পতিবার বলেন, ‘অধ্যাদেশ অনুমোদনের জন্য মন্ত্রিপরিষদে পাঠানো হয়েছে। এরপর প্রক্রিয়াগত কারণে আইন মন্ত্রণালয়, প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো হবে। সে জন্য ফলাফল প্রকাশে কিছুটা দেরি হতে পারে।’

করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে এবার পরীক্ষা ছাড়াই এইচএসসি ও সমমানের শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা হবে। সম্প্রতি সাংবাদিকদের সঙ্গে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানিয়েছিলেন, ‘ডিসেম্বর মাসের মধ্যে মূল্যায়নের ফল ঘোষণা করা হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.