১০ দলের আইপিএল

এর আগেও ১০ দল নিয়ে আইপিএল আয়োজন করা হয়েছিল। ৯ দলের আইপিএলও দেখেছেন দর্শক। কিন্তু নানা জটিলতায় শেষ পর্যন্ত ঘুরে ফিরে আট দলে ফিরে আসে বিসিসিআই। ২০২১ আইপিএলের আগে বেশি সময় হাতে নেই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের। তাই আগামী আইপিএল হচ্ছে আট দল নিয়েই। পরের বছর থেকে টুর্নামেন্টটি হবে ১০ দলের।

তারকায় ঠাসা টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আইপিএলে খেলার সুযোগ হয় না অনেক তরুণ ভারতীয় প্রতিভার। মাত্র আট দলের আইপিএলে কয়জনই আর সুযোগ পান। অনেক বিদেশি তারকাদেরও বসে থাকতে হয় বেঞ্চে। তাই গত আইপিএল থেকেই আইপিএলে দল বাড়ানোর আলোচনা জোরালো রূপ নেয়। দিন কয়েক আগেই জানা গিয়েছিল দুটি দল বাড়ছে আইপিএল। আজ বিসিসিআই এর বার্ষিক সাধারণ সভায় অনুমোদিত হয়ে দল বাড়ানোর প্রস্তাব । ২০২২ সালে থেকে আইপিএল হবে ১০ দলের।

আহমেদাবাদে বার্ষিক সভায় আলোচনায় হয়েছেন অলিম্পিকে ক্রিকেটের অংশগ্রহণ নিয়েও। ২০২৮ লস অ্যাঞ্জেলেস অলিম্পিকে ক্রিকেট আয়োজন করতে চায় আইসিসি। তবে আজ বিসিসিআইয়ে সাধারণ সভায় এ ব্যাপারে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেননি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা। আইসিসির কাছে এ ব্যাপারে আরও পরিষ্কার তথ্য চায় বিসিসিআই। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে জানাচ্ছে , ২০২১–এর শুরুতে বোর্ডের বিশেষ সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে অলিম্পিকের ব্যাপারে।

আইপিএলে দল বাড়লে লাভ হবে টিভি সম্প্রচারকদের। বিসিসিআইয়ের এক সূত্র ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, ‘দুটি নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি এলে তারাও মিডিয়া স্বত্বের ভাগ পাবে। তবে ২০২১ আইপিএলের সম্প্রচার স্বত্ব আগের মতোই থাকবে। এখন যেসব ফ্র্যাঞ্চাইজি আছে, তারাও এতে খুশি থাকবে।’

নতুন দুই ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা পেতে আগ্রহ দেখাচ্ছে ভারতের বড় বড় ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান। বিসিসিআইয়ের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দল বাড়লে লাভ ভারতীয় ক্রিকেটেরই, ‘এটাই সামনে এগিয়ে যাওয়ার বাস্তবসম্মত পদক্ষেপ, যা ভবিষ্যতে লাভজনকই হবে। তবে এখনই মূল গন্তব্যে না পৌঁছে যাওয়ার কথা ভাবলে চলবে না।’

বিসিসিআইয়ের বার্ষিক সাধারণ সভায় ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভেন্যুর ব্যাপারেও আলোচনা হয়েছে। বিশ্বকাপের জন্য আহমেদাবাদ, বেঙ্গালুরু, চেন্নাই, দিল্লি, মোহালি, ধর্মশালা, কলকাতা ও মুম্বাইকে সম্ভাব্য ভেন্যু হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.