শীতলতম মহাদেশ এন্টার্কটিকাতেও  পৌঁছে গেছে করোনা

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া মহামারি করোনাভাইরাসের করাল গ্রাস থেকে এতদিন মুক্ত ছিল বরফের রাজ্য বলে পরিচিত এন্টার্কটিকা মহাদেশ। এবার সেখানেও ভাইরাসটির সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। এর মধ্য দিয়ে বিশ্বের সব স্থানেই ভাইরাসটির সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়লো।

এন্টার্কটিকায় সমুদ্র এবং আইসবার্গ দ্বারা বেষ্টিত তাদের একটি প্রত্যন্ত গবেষণা কেন্দ্রে ইতোমধ্যে ৩৬ জনের শরীরে কোভিড-১৯ এর জীবাণু শনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৬ জন সেনা সদস্য ও ১০ জন বেসামরিক লোক। তাদের সবাইকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

জানা গেছে, চিলিয়ান পাতাগোনিয়ায় মাগ্যালেনেসে স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ দ্বারা করোনায় আক্রান্তদের ইতোমধ্যে যথাযথভাবে সবার থেকে বিচ্ছিন্ন রাখা হয়েছে। তাদের নিয়মিত পর্যবেক্ষণও করা হচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত কোনো জটিল পরিস্থিতি তৈরি হয়নি।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে বিশ্বের সবচেয়ে প্রত্যন্ত অঞ্চলের মধ্যে থাকা অ্যান্টার্কটিকার গবেষণা এবং সামরিক স্টেশনগুলো বেশ কিছু কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করে। তার মধ্যে রয়েছে- পর্যটন বাতিল করা, কার্যক্রম এবং কর্মীদের মেলামেশা কমিয়ে দেয়াসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধাও বন্ধ করতে হয়েছে।

হিমশীতল মহাদেশ জুড়ে ৩৮টি স্টেশনে প্রায় এক হাজার গবেষক ব্রিটিশ অ্যান্টার্কটিক জরিপের কাজে নির্বিঘ্নে ও নিরাপদে চলাচল করেছিলেন। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে এই অঞ্চলে ভ্রমণে আসা পর্যটকদের কারণে সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়ে গেছে।

সেনাবাহিনীর এক কর্মকর্তা জানান, ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে প্রথমে দুই জন সৈন্য অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপরই তাদের মধ্যে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ ধরা পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *