নিষিদ্ধ হচ্ছে নোট-গাইড বই

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায় নোট ও গাইড বই ছাপা, প্রকাশ ও বিপণন নিষিদ্ধ করার বিধান রেখে শিক্ষা আইনের খসড়া চূড়ান্ত করতে যাচ্ছে মন্ত্রণালয়। আগামী রবিবার (২ মে) ভার্চুয়াল বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে।

উক্ত বৈঠকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সব অতিরিক্ত সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত থাকবেন।

যদি কোনো শিক্ষক তার নিজ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের নোট ও গাইড বই কেনার জন্য চাপ প্রয়োগ করে থাকে, তাহলে তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে শিক্ষা সহায়ক বই প্রকাশের অনুমতি দেবে সরকার।কর্মকর্তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, খসড়া আইনটিতে নোট ও গাইড বই ছাপা, প্রকাশ ও বিপণনের শাস্তি হিসেবে সর্বোচ্চ তিন বছরের কারাদণ্ড বা পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করার বিধান রয়েছে।

যদি কোনো প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক শিক্ষার্থীদেরকে শিক্ষা সহায়ক বই কেনার জন্য চাপ প্রয়োগ করে থাকেন, তাহলে সেটি অসদাচরণ বলে বিবেচিত হবে এবং ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। স্কুলগুলো দুর্বল শিক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ক্লাসের ব্যবস্থা করতে পারবে। তবে, সেক্ষেত্রে পিতামাতার লিখিত অনুমতি নিতে হবে। সরকার কর্তৃক প্রণীত বিধি বা নীতিমালা কিংবা নির্বাহী আদেশের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে স্কুলের নির্ধারিত ক্লাসের সময়ের আগে কিংবা পড়ে অতিরিক্ত ক্লাসগুলো নিতে হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা জানান, আইনটির খসড়া নিয়ে মন্ত্রণালয়ের কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এ বিষয়টি নিয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বৈঠকে তাদের আলোচনা হবে। পরে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি ও মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তারা এ বিষয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *