ডেঙ্গুর থাবায় আতঙ্কিত সারাদেশ, ৫৩৬ রোগী শনাক্ত

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত সারাদেশে ৫৩৬ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। সারাদেমে বেড়েছে মৃত্যু।রাজধানীসহ সারাদেশে এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ধীরে ধীরে কমলেও এখনও এ রোগের প্রাদুর্ভাব রয়ে গেছে।সারাদেশের সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বুধবার সকাল ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় মোট ২৪৮ জন নতুন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টারের সহকারী পরিচালক ডা. আয়েশা আক্তার এ তথ্য জানিয়েছেন।

রাজধানীর ৪১টি হাসপাতালে ৭২ জন ও ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ১৭৬ জন ভর্তি হয়েছেন।। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার শুকতাইল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আল মামুন আলমের (৪২) মৃত্যু হয়েছে।রবিবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার হাজীগঞ্জ এলাকায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মো. আবদুল্লাহ (১২) নামে এক জেএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এছাড়াও ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে শরীফা আকতার (৩০) নামে এক গৃহবধূ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের আইসিইউতে মারা গেছেন। রবিবার ভোররাতে তিনি মারা যান বলে চমেক হাসপাতালের ডেঙ্গু ওয়ার্ডের (মেডিসিন ইউনিট-১, ১৩ নম্বর ওয়ার্ড) সহকারী রেজিস্টার ইমন দাশ জানিয়েছেন।সারাদেশে এই মৃত্যু সংখ্যা অস্বাভাবিকভাবে বাড়ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টারের সহকারী পরিচালক ডা. আয়েশা আক্তার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে ।অধ্যাপক ডা: নাজমুল ইসলাম বলেন, করোনাভাইরাসের প্রতি বেশি নজর দেয়া হচ্ছে। কিন্তু ডেঙ্গুকে উপেক্ষা করার কোনো সুযোগ নেই। তিনি সবাইকে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *