তালেবানের আতঙ্কে তাজিকিস্তানে পালিয়েছে হাজারের বেশি আফগান সৈন্য

সম্প্রতি আফগানিস্তান থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করে নিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সহ তাদের মিত্ররা।তারপর থেকেই দেশটির একের এক অঞ্চল দখলে নিতে শুরু করে তালেবানরা।সোমবার সকালে তালেবান যোদ্ধাদের সঙ্গে লড়াইয়ের একপর্যায়ে এভাবে পালিয়ে বাঁচেন সরকারি এই সেনা সদস্যরাজানা গেছে, আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলে তালেবানের সাথে লড়াইয়ে টিকতে না পেরে এরই মধ্যে এক হাজারেরও বেশি আফগান সেনা সদস্য সীমান্ত অতিক্রম করে পার্শ্ববর্তী তাজিকিস্তানে পালিয়ে গেছে।তাজিকিস্তানের ন্যাশনাল সিকিউরিটি কমিটি এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।খবর ওয়াশিংটন পোস্ট, রয়টার্স ও বিবিসির।

২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার পর আফগানিস্তানে কথিত সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে নামে মার্কিন বাহিনী। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় কয়েকটি মার্কিন মিত্র দেশ। কিন্তু অবশেষে তালেবানের সঙ্গে শান্তি চুক্তির আওতায় দেশটি থেকে একে একে সরে যাচ্ছেন বহুজাতিক বাহিনীর সেনারা।আফগানিস্তানের এক-তৃতীয়াংশ এলাকা এখন তালেবানের দখলে এবং প্রতিদিনই তারা নতুন নতুন জেলা সরকারি বাহিনীর হাত থেকে ছিনিয়ে নিচ্ছে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই সীমান্তবর্তী কয়েকটি ঘাঁটি থেকে আফগান সেনাদের পালানোর ঘটনা ঘটেছে।

তাজিকিস্তানের ন্যাশনাল সিকিউরিটি কমিটি জানায়, তালেবান যোদ্ধাদের সঙ্গে রোববার রাতে তুমুল লড়াইয়ের পর ১ হাজার ৩৭ জন আফগান সেনা প্রাণ বাঁচাতে একেবারে দেশ ছেড়ে পালিয়ে সাবেক সোভিয়েত উপনিবেশ তাজিকিস্তানে আশ্রয় নিয়েছেন।আফগানিস্তানের উত্তর–পূর্বাঞ্চলীয় বাদাখশান প্রদেশের ছয় জেলার পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে তালেবান। প্রদেশটি তাজিকিস্তান সীমান্তে অবস্থিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *