ওবায়দুল কাদের হাসপাতাল ছেড়েছেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন।

শুক্রবার বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টার দিকে প্রয়োজনীয় আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করার পর তাকে হাসপাতাল ছাড়ার অনুমতি দেওয়া হয়। সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপ-প্রধান তথ্য কর্মকর্তা আবু নাছের এ তথ্য জানিয়েছেন।

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ওবায়দুল কাদের গত ৩ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের (বিএসএমএমইউ) ইনসেনটিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) ভর্তি হন। শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও এনজিওগ্রাম করে তার হার্টে তিনটি ব্লক পাওয়া গেলে একটি ব্লকে রিং পরানো হয়।

পরে তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে নিয়ে ভেন্টিলেশনের মাধ্যমে কৃত্রিম শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যবস্থা করা হয়। এই অবস্থায় ভারতের প্রখ্যাত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী শেঠির পরামর্শে ৪ মার্চ এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ওবায়দুল কাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়। সেখানে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের আইসিইউতে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ফিলিপ কোহের তত্ত্বাবধানে তার চিকিৎসা চলে।

উপ-প্রধান তথ্য কর্মকর্তা আবু নাছের বলেন, ওবায়দুল কাদের সুস্থ আছেন। চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী ফলোআপ চিকিৎসার জন্য আরও কিছুদিন তিনি সিঙ্গাপুরে থাকবেন।

আবু নাছের বলেন, হাসপাতাল ছাড়লেও এখনই দেশে ফিরছেন না মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ফলোআপ চিকিৎসার জন্য কিছুদিন সিঙ্গাপুরেই থাকতে হবে তাকে। একটি ভাড়া বাসায় নেওয়া হবে তাকে। ওই বাসায় থেকেই আরও চিকিৎসা নেবেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী।

Are you happy ? Please spread the news

Leave a Reply

Your email address will not be published.